মেইজি পুনর্গঠন এর প্রকৃতি কিরূপ ছিল

মেইজি বা মেজি শব্দের অর্থ হলো "সভ্যতা এবং জ্ঞানদীপ্তি"| শোগুনোত্তর যুগে জাপানের সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক জীবনধারা এক নতুন খাতে প্রবাহিত হয়েছিল, সেই জীবনধারা ছিল পাশ্চাত্য সভ্যতা দ্বারা প্রভাবান্বিত| তাই মেইজি যুগে অভ্যুদয়ের ফলে জাপানি জীবনে পাশ্চাত্যের ছাপ ধীরে ধীরে স্পষ্ট থেকে সুস্পষ্ট হতে থাকে এবং জাপানে শুরু হয় প্রথম পর্যায়ের আধুনিক যুগ|

এক কথায় বলা যায় যে, পুরাতন যুগ অর্থাৎ সামন্ততন্ত্রের অবসান এবং নতুন ও আধুনিক সমাজ ব্যবস্থা উত্তোলনের ক্ষেত্রে জাপানের ইতিহাসে এক উল্লেখযোগ্য অধ্যায় হিসেবে বিবেচিত| তাই 1868 খ্রিস্টাব্দে "মেইজি বিপ্লব"  বা "মেইজি শাসনের পুনঃপ্রতিষ্ঠা" ফলে রাজনীতি, সাহিত্য, শিল্প, শিক্ষা, আধুনিকতার ক্ষেত্রে এক অন্য পর্যায়ে লক্ষ্য করা গিয়েছিল|


মেইজি-পুনর্গঠন-এর-প্রকৃতি-কিরূপ-ছিল

জাপানের মানচিত্র




মেইজি পুনঃপ্রতিষ্ঠার প্রকৃত প্রসঙ্গে বহু আধুনিক ঐতিহাসিক আলোকপাত করেছেন| ঐতিহাসিক ই. হাবার্ট নোরমান(E. H Norman) বলেছেন, "মেইজি পুনঃপ্রতিষ্ঠার পর জাপানের সম্রাট নামতান্ত্রিক শাসক থেকে দেশের প্রকৃত শাসকে পরিণত হয়"| তাঁর মতে, মেইজি পুনঃদ্ধারে পর জাপানের দ্বৈত শাসন ব্যবস্থার অবসান ঘটেছিল ও সম্রাট তার হাতে পর্যাপ্ত ক্ষমতা ফিরে পেয়েছিল|


এই শাসন পুনঃপ্রতিষ্ঠার ও জাপানের আধুনিকরণের ক্ষেত্রে একটি প্রশ্নের অবতারণা হয়ে থাকে যে- এই পুনঃপ্রতিষ্ঠার এর ফলে জাপানে যে আধুনিকীকরণ হয়েছিল, তার প্রকৃতি কিরূপ ছিল ? অর্থাৎ এই পুনঃপ্রতিষ্ঠার এর ফলে পূর্ব শাসন পদ্ধতির পরিবর্তন হয়েছিল, না কোনো পরিবর্তন হয়নি ? ঐতিহাসিক ভিনাক এর পুনঃপ্রতিষ্ঠার বিষয়টি মেনে নিতে রাজি নন|  তার মরতে, "The Meiji Restoration didn't Mark Sharp break with the past ".


মেইজি-পুনর্গঠন-এর-প্রকৃতি-কিরূপ-ছিল

Meiji Jingu Shrine Dedication Sake



তবে আধুনিকতার বাতাবরণে বিচার করলে দেখা যাবে যে, পুনঃপ্রতিষ্ঠার এর ফলে জাপান একটি আধুনিক রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার সুযোগ পেয়েছিল| যেমন- সামন্ত প্রথার বিলোপ ও আধুনিক সাম্রাজ্যে পুনঃ বিন্যাস, নতুন শিল্প প্রতিষ্ঠা, আধুনিক মুদ্রা প্রচলন, পাশ্চাত্য শিক্ষা ব্যবস্থা ইত্যাদি সমাবেশ জাপানে দেখা দিয়েছিল| এক কথায় একটি আধুনিক রাষ্ট্রের উপাদান সমূহ অর্জিত হয়েছিল| তাই ঐতিহাসিকগণ বলেছেন, 1868 খ্রিস্টাব্দে পরিবর্তন সামন্ততন্ত্রের অবলুপ্তি ঘটিয়ে সম্রাটকে তার প্রবর্তন ক্ষমতার সুপ্রতিষ্ঠিত করেছিল|

কিছু ঐতিহাসিকগণ যথা ভিনাক, রির্চাড স্টোরি প্রমুখরা উক্ত অভিমতকে এই শাসন প্রকৃতির সরলীকরণ ব্যাখ্যা বলে উল্লেখ করেছেন| ভিনাক বলেছেন, "পশ্চিম জাপানের গোষ্ঠীসমূহ যথা সাৎসুমা, চোসু, তোসা ও হিজেনের নেতৃবৃন্দ দেশের প্রকৃত শাসক হিসাবে প্রতিপন্ন হয়েছিলেন"| জনৈক ঐতিহাসিক এই পুনঃপ্রতিষ্ঠার শাসন কালকে জাতীয় সুদূর করনের যুগ (As of national consolidation) বলে অভিহিত করেছেন"|


মার্কসবাদী ঐতিহাসিকরা বলেছেন, জাপানি সংবিধান রচিত হওয়া পর্যন্ত সময় সীমার মধ্যে জাপানের অভ্যন্তরীণ ক্ষেত্রে যে সুদূর প্রসার পরিবর্তন সূচিত হয়েছিল তা অবশ্যম্ভাবী| এরই ফলশ্রুতি হিসাবে জাপানে মেইজি শাসনের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ঘটেছিল| 1868 খ্রিস্টাব্দের এর পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও 1889 খ্রিস্টাব্দে মেইজি সংবিধান এই নিয়ন্ত্রণকে সুদূর করেছিল এবং এই শাসন ব্যবস্থা ছিল সম্পূর্ণভাবে স্বৈরতান্ত্রিক|

পরিশেষে বলা যায়, প্রকৃত আধুনিকীকরণের ক্ষেত্রে জাপান ঐতিহ্যবাদ ও প্রাচ্য সভ্যতার এই দুই এর প্রভাবে বিশেষভাবে আলোকিত হয়েছিল| ঐতিহাসিক ভিনাক এর ভাষায় বলা যায়, "মেইজি বিপ্লব" বা "মেইজি পুনঃপ্রতিষ্ঠা" ফলে শাসক রাজবংশের পরিবর্তন হয়েছিল ঠিকই, কিন্তু শাসন ব্যবস্থার প্রকৃতিগত কোন পরিবর্তন সৃষ্টি হয়নি|

তথ্যসূত্র

  1. ড. হরপ্রসাদ চট্টোপাধ্যায়, "জাপানের ইতিহাস"
  2. R. H. P. Mason, "A History of Japan".
  3. Kenneth Henshall, "A History of Japan: From Stone Age to Superpower".

সম্পর্কিত বিষয়

  1. মেইজি যুগে জাপানে প্রবর্তিত নতুন ভূমি ব্যবস্থা (আরো পড়ুন)
  2. জাপানে সামন্তবাদের বিশেষ বৈশিষ্ট্য কী ছিল (আরো পড়ুন)
  3. জাপানের ইতিহাসে ডাইমিয়ো এবং সামুরাই বলতে কি বুঝায় (আরও পড়ুন)
  4. মেইজি যুগের মুদ্রা ব্যবস্থার অতি সংক্ষিপ্ত আলোচনা (আরো পড়ুন)
সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                     .......................................


    Your Reaction ?

    Previous
    Next Post »