Friday, 21 September 2018

উপযোগবাদ

উপযোগবাদ হলো আঠারো ও উনিশ শতকের ইংরেজ চিন্তাবিদদের সমাজ দর্শনের উপর প্রতিষ্ঠিত রাজনৈতিক চিন্তাভাবনা| এই সময় ইউরোপে শিল্প বিপ্লবের ফলে আর্থসামাজিক ব্যবস্থার দ্রুত পরিবর্তন ঘটে, পুঁজিপতি ও শিল্প শ্রমিকদের উত্থান হয়| শ্রমিক শ্রেণী দুর্গীতির মধ্যে নিক্ষিপ্ত হয়| অধিকারহীন এই সম্প্রদায়ের পক্ষ নেন ইংল্যান্ডের বুদ্ধিজীবী গোষ্ঠী|আবার ফরাসি বিপ্লবের ফলে সমগ্র ইউরোপ জুড়ে পুরনো ব্যবস্থার অবসান হয়ে গণতন্ত্র, সাম্য, অধিকার ও স্বাধীনতার ধারণা ছড়িয়ে পড়ে| এই পটভূমিকায় ইংল্যান্ডের চিন্তাবিদগণ উপযোগবাদী দর্শন প্রতিষ্ঠিত করেন|

উপযোগবাদ

শ্রমিক

উপযোগবাদী দার্শনিকদের মধ্যে ডেভিড হিউম, জেরেমী বেন্থাম, জেমস মিলজন স্টুয়ার্ট মিল প্রমূখ ছিলেন উল্লেখযোগ্য| সতেরো শতকে রিচার্ড কামবারল্যান্ড এবং ফ্রান্সিস হাচিসন এই তত্ত্বের কথা প্রথম উল্লেখ করেন| উপযোগবাদ বলতে হাচিসন মনে করতেন, "সর্বাধিক মানুষের সর্বাধিক সুখ"| ডেভিড হিউম যুক্তির মাধ্যমে স্বাভাবিক আইন, সামাজিক চুক্তি মতামত ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার সমালোচনা করেন|তার বিখ্যাত গ্রন্থ গুলি হল - "An enquiry concerning human understanding", "Political Discourses", "Natural History of determining motive".  তার মতে, সরকারের প্রতি অনুগত না হলে সমাজ ব্যবস্থা টিকে টিকে না| এই জন্য সকলে নিজেদের স্বার্থের দিকে তাকিয়ে রাষ্ট্রের উপযোগীতার কথা ভেবে রাষ্ট্রীয় আনুগত্য প্রদর্শন করে| কিন্তু ব্যবহারিক দৃষ্টিকোণ থেকে তিনি সমাজ রাষ্ট্র আইন ইত্যাদি সমালোচনা করলেও তিনি এগুলি পরিবর্তনের কথা বলেননি|

উপযোগবাদী শ্রেষ্ঠ প্রবক্তা জেরেমী বেন্থাম ছিলেন "A fragment on government", "Discourse on civil and penal legislation" এবং "Introduction to the principles of morals and legislation" গ্রন্থের রচয়িতা| ইংল্যান্ডের আইনের প্রতি তাঁর কোন শ্রদ্ধা ছিল না| তিনি মনে করতেন যে, "আজকের আইন আজকের প্রয়োজন অনুসারে আজকের বিধানসভা দ্বারা আকৃতির হতে হবে এবং এই চাহিদাগুলির হলো একমাত্র মানদণ্ড, অবশ্যই সর্বাধিক পুরুষের সর্বাধিক ভাল হবে"| বেন্থাম মনে করতেন যে, সরকার জনগণের অধিকার রক্ষা করবে| তিনি সংস্কার বা বিপ্লবে বিশ্বাস করতেন না| তাঁর মতে উপযোগবাদ হলো, মানুষের কাজ কর্মের একমাত্র উৎস, তা স্পষ্ট ও সুনিদিষ্ট| বেন্থামের মতে উপযোগবাদ তত্ত্ব হলো বিশ্বজনীন, সর্বযুগের সর্ব মানুষের উপর তা প্রযোজ্য|

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কর্মচারী জেমস মিল ছিলেন "Selected economic writings",  "Analysis of the phenomena of the human mind", "Elements of political economy" প্রমূখ গ্রন্থের রচয়িতা| তিনি বিশ্বাস করতেন, সব মানুষ সমান সম্ভাবনা ও শক্তি নিয়ে জন্মায়, কিন্তু শিক্ষা ও পরিবেশগত পার্থক্যের জন্য সকলের বাস্তব জীবনে সফল হতে পারে না| মিলের মতে, কোন কাজে নৈতিক ভিত্তি হলো উপযোগবাদ| তিনি জনপ্রতি নিধিত্বমূলক গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কথা বলেছিলেন| আইন ও বিচার এর সংস্কারের দাবি করে তিনি আন্তর্জাতিক আইন প্রণয়নের প্রস্তাব দেন| তিনি তাঁর গ্রন্থে জেমস মিলের অর্থনৈতিক ভিত্তির কথা বলেন| তাঁর পুত্র জন স্টুয়ার্ট মিল ছিলেন "Principles of Political Economy", "A system of logic" প্রমূখ গ্রন্থের লেখক| তাঁর চিন্তা ভাবনার উপর এরিস্টটল এর প্রভাব পড়েছে| তিনি জনগণের ইচ্ছার উপর সরকারের অস্তিত্বের কথা ব্যক্ত করেছিলেন এবং তিনি মহিলাসহ শিক্ষিত ব্যক্তিদের ভোটাধিকার প্রস্তাব দেন |

উপযোগীবাদীগন তাদের রচনাতে সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলির উৎপত্তি, প্রকৃতি ইত্যাদি ব্যাখ্যাকে দূরে রেখে মানুষ ও তার মন নিয়ে এক কাল্পনিক পরিকল্পনা গড়ে তুলেছিলেন| ব্যক্তিমানুষ অপেক্ষা সমগ্র সমাজের স্বার্থ ছিল তাদের কাছে বেশি গ্রহনযোগ্য| ভারতের ব্রিটিশ প্রশাসক উইলিয়াম বেন্টিঙ্ক উপযোগীবাদী আদর্শে প্রভাবিত হয়ে তৎকালীন ভারতের ধর্ম, সমাজ , শিক্ষা, প্রশাসন ও বিচারব্যবস্থার বেশ কিছু সংস্কার সাধন
করেছিলেন| এক বিশেষ সময়ের বিশেষ শ্রেণীর দর্শন হিসেবে উদ্ভূত উপযোগবাদ ( utilitarianism ) পরবর্তীকালে জনপ্রিয়তা হারিয়েছিল |
    
               .....................................

Thank you so much for reading the full post. Hope you like this post. If you have any questions about this post, then please let us know via the comments below and definitely share the post for help others know.

Related Posts

0 Comments: