Friday, 21 September 2018

উপযোগবাদ

SHARE
উপযোগবাদ হলো আঠারো ও উনিশ শতকের ইংরেজ চিন্তাবিদদের সমাজ দর্শনের উপর প্রতিষ্ঠিত রাজনৈতিক চিন্তাভাবনা| এই সময় ইউরোপে শিল্প বিপ্লবের ফলে আর্থসামাজিক ব্যবস্থার দ্রুত পরিবর্তন ঘটে, পুঁজিপতি ও শিল্প শ্রমিকদের উত্থান হয়| শ্রমিক শ্রেণী দুর্গীতির মধ্যে নিক্ষিপ্ত হয়| অধিকারহীন এই সম্প্রদায়ের পক্ষ নেন ইংল্যান্ডের বুদ্ধিজীবী গোষ্ঠী|আবার ফরাসি বিপ্লবের ফলে সমগ্র ইউরোপ জুড়ে পুরনো ব্যবস্থার অবসান হয়ে গণতন্ত্র, সাম্য, অধিকার ও স্বাধীনতার ধারণা ছড়িয়ে পড়ে| এই পটভূমিকায় ইংল্যান্ডের চিন্তাবিদগণ উপযোগবাদী দর্শন প্রতিষ্ঠিত করেন|

utilitarianism

শ্রমিক

উপযোগবাদী দার্শনিকদের মধ্যে ডেভিড হিউম, জেরেমী বেন্থাম, জেমস মিলজন স্টুয়ার্ট মিল প্রমূখ ছিলেন উল্লেখযোগ্য| সতেরো শতকে রিচার্ড কামবারল্যান্ড এবং ফ্রান্সিস হাচিসন এই তত্ত্বের কথা প্রথম উল্লেখ করেন| উপযোগবাদ বলতে হাচিসন মনে করতেন, "সর্বাধিক মানুষের সর্বাধিক সুখ"| ডেভিড হিউম যুক্তির মাধ্যমে স্বাভাবিক আইন, সামাজিক চুক্তি মতামত ও রাষ্ট্র ব্যবস্থার সমালোচনা করেন|তার বিখ্যাত গ্রন্থ গুলি হল - "An enquiry concerning human understanding", "Political Discourses", "Natural History of determining motive".  তার মতে, সরকারের প্রতি অনুগত না হলে সমাজ ব্যবস্থা টিকে টিকে না| এই জন্য সকলে নিজেদের স্বার্থের দিকে তাকিয়ে রাষ্ট্রের উপযোগীতার কথা ভেবে রাষ্ট্রীয় আনুগত্য প্রদর্শন করে| কিন্তু ব্যবহারিক দৃষ্টিকোণ থেকে তিনি সমাজ রাষ্ট্র আইন ইত্যাদি সমালোচনা করলেও তিনি এগুলি পরিবর্তনের কথা বলেননি|

উপযোগবাদী শ্রেষ্ঠ প্রবক্তা জেরেমী বেন্থাম ছিলেন "A fragment on government", "Discourse on civil and penal legislation" এবং "Introduction to the principles of morals and legislation" গ্রন্থের রচয়িতা| ইংল্যান্ডের আইনের প্রতি তাঁর কোন শ্রদ্ধা ছিল না| তিনি মনে করতেন যে, "আজকের আইন আজকের প্রয়োজন অনুসারে আজকের বিধানসভা দ্বারা আকৃতির হতে হবে এবং এই চাহিদাগুলির হলো একমাত্র মানদণ্ড, অবশ্যই সর্বাধিক পুরুষের সর্বাধিক ভাল হবে"| বেন্থাম মনে করতেন যে, সরকার জনগণের অধিকার রক্ষা করবে| তিনি সংস্কার বা বিপ্লবে বিশ্বাস করতেন না| তাঁর মতে উপযোগবাদ হলো, মানুষের কাজ কর্মের একমাত্র উৎস, তা স্পষ্ট ও সুনিদিষ্ট| বেন্থামের মতে উপযোগবাদ তত্ত্ব হলো বিশ্বজনীন, সর্বযুগের সর্ব মানুষের উপর তা প্রযোজ্য|

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কর্মচারী জেমস মিল ছিলেন "Selected economic writings",  "Analysis of the phenomena of the human mind", "Elements of political economy" প্রমূখ গ্রন্থের রচয়িতা| তিনি বিশ্বাস করতেন, সব মানুষ সমান সম্ভাবনা ও শক্তি নিয়ে জন্মায়, কিন্তু শিক্ষা ও পরিবেশগত পার্থক্যের জন্য সকলের বাস্তব জীবনে সফল হতে পারে না| মিলের মতে, কোন কাজে নৈতিক ভিত্তি হলো উপযোগবাদ| তিনি জনপ্রতি নিধিত্বমূলক গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কথা বলেছিলেন| আইন ও বিচার এর সংস্কারের দাবি করে তিনি আন্তর্জাতিক আইন প্রণয়নের প্রস্তাব দেন| তিনি তাঁর গ্রন্থে জেমস মিলের অর্থনৈতিক ভিত্তির কথা বলেন| তাঁর পুত্র জন স্টুয়ার্ট মিল ছিলেন "Principles of Political Economy", "A system of logic" প্রমূখ গ্রন্থের লেখক| তাঁর চিন্তা ভাবনার উপর এরিস্টটল এর প্রভাব পড়েছে| তিনি জনগণের ইচ্ছার উপর সরকারের অস্তিত্বের কথা ব্যক্ত করেছিলেন এবং তিনি মহিলাসহ শিক্ষিত ব্যক্তিদের ভোটাধিকার প্রস্তাব দেন |

উপযোগীবাদীগন তাদের রচনাতে সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলির উৎপত্তি, প্রকৃতি ইত্যাদি ব্যাখ্যাকে দূরে রেখে মানুষ ও তার মন নিয়ে এক কাল্পনিক পরিকল্পনা গড়ে তুলেছিলেন| ব্যক্তিমানুষ অপেক্ষা সমগ্র সমাজের স্বার্থ ছিল তাদের কাছে বেশি গ্রহনযোগ্য| ভারতের ব্রিটিশ প্রশাসক উইলিয়াম বেন্টিঙ্ক উপযোগীবাদী আদর্শে প্রভাবিত হয়ে তৎকালীন ভারতের ধর্ম, সমাজ , শিক্ষা, প্রশাসন ও বিচারব্যবস্থার বেশ কিছু সংস্কার সাধন
করেছিলেন| এক বিশেষ সময়ের বিশেষ শ্রেণীর দর্শন হিসেবে উদ্ভূত উপযোগবাদ ( utilitarianism ) পরবর্তীকালে জনপ্রিয়তা হারিয়েছিল |
    
               .....................................
SHARE

Author: verified_user

0 Comments: