তাওবাদ কি

চীনে কনফুসীয় মতবাদ ছাড়াও আর যে মতাদর্শ আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল তা হলো তাওবাদ| এই মতবাদে রূপকার ছিলেন লাওৎ-জু| খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকে লাওৎ-জু এর জন্ম| সম্ভবত ইনি কনফুসিয়াসের সমকালীন ছিলেন| 

তবে লাওৎ-জু এর সম্পর্কে বিশেষ কিছু জানা যায় না| মৃত্যুর পূর্বে লাওৎ-জু "Tai-Teh-king" নামক একটি গ্রন্থ রচনা করেছিলেন, পরবর্তীতে পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষায় এই গ্রন্থটি অনুবাদ করা হয়| কবি সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত বাংলা ভাষায় এই গ্রন্থটি রচনা করেন| অনুবাদ করে চীনের রূপ প্রকাশ করেন|

তাওবাদ
তাওবাদী  মন্দির

তাওবাদ
তাওবাদী  মন্দির

তাওবাদ
তাওবাদের প্রতীক


তাওবাদ ছিল শাসকদের স্বৈরাচারী নীতির বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের প্রতিবাদ ও বিদ্রোহের দর্শন| তাওবাদ এর মূল কথা ছিল- অস্ত্রশানিত হলে বিশৃংখলা বাড়বে, আইন বাড়ালে চোর-ডাকাত বাড়বে| প্রশাসনের রাজার হস্তক্ষেপ যত কম হবে, তত প্রজাদের মঙ্গল হবে| 


তাও শব্দের অর্থ হলো Way বা পথ| তাওবাদী দর্শনের মূল কথা হলো, প্রকৃতির মধ্যে পথের অনুসন্ধান করা| তাও পন্থীরা মনে করতেন, জ্ঞানের প্রকৃত উৎস হলো প্রকৃতি| তাওবাদীরা প্রকৃতির সৌন্দর্যের উপভোগ করার কথা বলেছেন| কনফুসিয়াস মতবাদ যেখানে নৈতিকতাকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন, তাওবাদীরা তাও তা অস্বীকার করেছে| প্রকৃতিকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে তারা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে মর্যাদা দিয়েছে|

তাওবাদীরা বাস্তব জীবনের নিয়ম-কানুনকে না মেনে নিরব স্বাধীনতার মাধ্যমে অনন্ত শান্তির অন্বেষণে করেছিলেন এবং তারা ছিলেন রহস্যবাদী| প্রকৃতির নিয়মে সবকিছু চলবে এই বিশ্বাস ছিল তাদের মজ্জাগত, প্রকৃতির বিরুদ্ধে কোন কিছু করার তারা ছিলেন বিরোধী| এই অর্থে তাদের দর্শনকে নৈতিবাচক বলা যায়| আসলে এই দর্শনের মূল বিষয় ছিল শান্তি| দন্ড ও সংঘাতকে পরিহারে শান্তি বজায় রাখা ছিল এদের উদ্দেশ্য| 

সাধারণ মানুষ এই মতবাদে খুব বেশি আকৃষ্ট হয়েছিল বলে মনে হয় না| পরবর্তীতে চ্যাংলিয়াং এর নেতৃত্বে তাওবাদ ক্রমশ ধর্ম সম্প্রদায়ে পরিণত হয়| চীন সম্রাট 423 সালে তাও ধর্ম প্রধানকে তিয়েন-সি(প্রধান গুরু) উপাধিতে ভূষিত করেন| বর্তমানে চীনে তাওবাদী মন্দিরের সংখ্যা দেড় হাজারেরও বেশি|


তথ্যসূত্র

  1. অমিত ভট্টাচার্য, "চীনের রূপান্তরের ইতিহাস 1840-1969"
  2. Jonathan Fenby, "The Penguin History of Modern China".

সম্পর্কিত বিষয়

সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                     .......................................

    নবীনতর পূর্বতন
    👉 Join Our Whatsapp Group- Click here 🙋‍♂️
    
        
      
      
        👉 Join our Facebook Group- Click here 🙋‍♂️
      
    
    
      
    
       
      
      
        👉 Like our Facebook Page- Click here 🙋‍♂️
    
    
        👉 Online Moke Test- Click here 📝📖 
    
    
        
      
               
    
     Join Telegram... Family Members
      
         
                    
                    
    
    
    
    
    
    
    

    টেলিগ্রামে যোগ দিন ... পরিবারের সদস্য

    
    
    
    
    
    
    
    
    
    

    নীচের ভিডিওটি ক্লিক করে জেনে নিন আমাদের ওয়েবসাইটটির ইতিহাস সম্পর্কিত পরিসেবাগুলি

    
    

    পরিক্ষা দেন

    ভিজিট করুন আমাদের মক টেস্ট গুলিতে এবং নিজেকে সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুত করুন- Click Here

    আমাদের প্রয়োজনীয় পরিসেবা ?

    Click Here

    ইমেইলের মাধ্যমে ইতিহাস সম্পর্কিত নতুন আপডেটগুলি পান(please check your Gmail box after subscribe)

    নতুন আপডেট গুলির জন্য নিজের ইমেইলের ঠিকানা লিখুন:

    Delivered by FeedBurner