উলেমা কি

সুলতানি আমলের মুসলমান সমাজের সুবিধাভোগী শ্রেণী দুই ভাগে বিভক্ত ছিল-
  1. উলেমা বা ওলামা
  2. ওমরাহ (অভিজাত)
সাধারণভাবে ইসলাম ধর্মের শাস্ত্রাদি সম্পর্কে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিদেরই উলেমা বলা হতো। বিভিন্ন দেশ ও জাতির লোক নিয়ে সুলতানি যুগের উলেমা সম্প্রদায় গঠিত হয়। সাধারণত উলেমারা ছিলেন সুন্নি সম্প্রদায়ের লোক, অতুর্কী এবং আরব, ইরান ও আফগানিস্তান থেকে আগত। উলেমা শ্রেণীতে প্রবেশ করার মতো শিক্ষা-দীক্ষা ভারতীয় মুসলমানদের ছিল না।

উলেমা-কি



সামাজিক শ্রেণী হিসাবে উলেমারা ঐক্যবদ্ধ ছিলেন। শিক্ষক, বিচারক ও ধর্মশাস্ত্রে ভাষ্যকার হিসাবে এরা কাজ করতেন। সহকারী পদেও এরা নিযুক্ত হতেন। অনেকে আবার সাধারণ মুসলমানদের মধ্যে ধর্মীয় উপদেশ বিতরণ করতেন। সুলতানি যুগের সকল বিদ্বান লোক ও ইতিহাসবিদরা উলেমা সম্প্রদায়ভুক্ত। ইসলামী ধর্মশাস্ত্রে পান্ডিত্যের জন্য এদের সামাজিক মর্যাদা ছিল। ধর্মীয় ও সামাজিক সমস্যা দেখা দিলে এরা "ফতোয়া"(সিদ্ধান্ত) দিতেন।

সুলতানি আমলের রাষ্ট্র ব্যবস্থায় উলেমারা বিশেষ ক্ষমতার অধিকারী হন। এর মূল কারণ ছিল, দিল্লির সুলতানদের খলিফার প্রতি আনুগত্য। যার জন্য উলেমারা শাসন সংক্রান্ত ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করার সুযোগ পায়। আলাউদ্দিন খলজির পূর্ববর্তী দিল্লির সকল সুলতানিই উলেমা সম্প্রদায়ের সম্মতি ছাড়া কোন কাজ করতেন না। আলাউদ্দিন খলজী একমাত্র সুলতান যিনি উলেমাতন্ত্রের প্রভাব থেকে রাষ্ট্রযন্ত্রকে মুক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

অধ্যাপক নিজামী লিখেছেন, "উলেমারা সুলতান ও সাধারণ মানুষের মধ্যে যোগসূত্র হিসাবে কাজ করতে গিয়ে প্রভূত শক্তির অধিকারী হন। অমুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ ভারতবর্ষের সুলতানি শাসনকে সুদৃঢ় করার প্রয়োজনে মুসলমান জনতার ঐক্য এবং সেই ঐক্য রূপকার হিসেবে উলেমাদের ভূমিকাকে অস্বীকার করা সুলতানদের পক্ষে সহজ ছিল না"।



তথ্যসূত্র

  1. অধ্যাপক গোপালকৃষ্ণ পাহাড়ী, "মধ্যকালীন ভারত"
  2. সতীশ চন্দ্র, "মধ্যযুগে ভারত"
  3. Poonam Dalal Dahiya, "Ancient and Medieval India"
  4. Upinder Singh, "A History of Ancient and Early Medieval India: From the Stone Age to the 12th Century"

    সম্পর্কিত বিষয়

    সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                  ......................................................


    Previous Post Next Post