উনবিংশ শতকের প্রাচ্যবাদী ও পাশ্চাত্যবাদী বিতর্ক

ভারতীয় শিক্ষা ব্যবস্থার অবক্ষয় শুরু হয় অষ্টাদশ শতকের শেষ দিক থেকে| এর প্রধান কারণ ছিল, সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন হওয়া বা ইংরেজ সরকারের দেশে শিক্ষা ব্যবস্থার প্রতি অবজ্ঞা করা| অষ্টাদশ শতকের দ্বিতীয় দশক থেকে কোম্পানি দেশীয় শিক্ষা ব্যবস্থার প্রতি কোন আগ্রহ দেখাননি| 

কারণ তাদের মধ্যে ধারণা ছিল, ভারতীয়রা শিক্ষা ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করলে ভারতীয়দের মনে ক্ষোভের সঞ্চার হতে পারে এবং কোম্পানি সরকারের শিক্ষা নীতির মধ্যে একটি নিজস্ব বিতর্কের বিষয় ছিল| সেই বিতর্কিত হলো, অনেকেই চেয়েছেন ইংরেজি শিক্ষার মাধ্যমে পাশ্চাত্য শিক্ষার বিস্তার ঘটানো এবং এদেরকে বলা হতো পাশ্চাত্যবাদী| 

এই পাশ্চাত্যবাদীদের ভারতীয় সংস্কৃতি বা সভ্যতা সম্পর্কে তাদের বিন্দুমাত্র জ্ঞান বা ধারণা ছিল না| কারণ ভারতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাকে তারা সর্বদাই নিচু চোখে দেখত|

কিন্তু ওয়ারেন হেস্টিংস, উইলিয়াম জোন্স প্রমুখরা ভারতীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির প্রতি আগাগোড়া থেকেই শ্রদ্ধাশীল ছিলেন এবং এদেরকে বলা হতো প্রাচ্যবাদী| মূলত এদের উদ্যোগে কলকাতায় এশিয়াটিক সোসাইটি, হিন্দু কলেজ ও কলকাতায় বিভিন্ন মাদ্রাসা গড়ে উঠেছিল|


উনবিংশ-শতকের-প্রাচ্যবাদী-ও-পাশ্চাত্যবাদী-বিতর্ক



1813 সালে শিক্ষার ক্ষেত্রে এক লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়| কিন্তু এই এক লক্ষ টাকা প্রাচ্য না পাশ্চাত্য শিক্ষা খাতে খরচ করা হবে, তা উল্লেখ করা হয়নি| তাই শিক্ষা সংক্রান্ত নীতি নির্ধারণের জন্য জেনারেল কমিটি বা Public instruction গঠন করা হয়| এই জেনারেল কমিটিতে 10 জন সদস্য ছিলেন এবং এদের মধ্যে 5 জন ছিলেন পাশ্চাত্যবাদী|

এই এক লক্ষ টাকা কলকাতায় একটি সংস্কৃত কলেজ গড়ে তোলার পেছনে খরচ করা হবে বলে রাজা রামমোহন রায় এর বিরোধিতা করেন| কেননা তিনি মনে করেছিলেন, সংস্কৃত শিক্ষার মাধ্যমে ছাত্ররা কেবলমাত্র ব্যাকরণ এবং অধিবিদ্যা গত জ্ঞানে পারদর্শী লাভ করবে| কিন্তু বাস্তব জীবনে যার প্রয়োজন ছিল, তা খুব সামান্য, কেননা সেই সময় বাতাবরণ চলছিল পাশ্চাত্যবাদী অনুকূলে|

উনবিংশ-শতকের-প্রাচ্যবাদী-ও-পাশ্চাত্যবাদী-বিতর্ক
রামমোহন রায়
Source- wikipedia (check here)
Year of publication- 1907
Author- Sastri, Sibnath
Modified- colour and background


তাছাড়া কলকাতার ইংরেজি শিক্ষায় শিক্ষিত মধ্যবিত্ত শ্রেণী ইংরেজি ভাষায় শিখতে এবং পাশ্চাত্য সাহিত্য ও বিজ্ঞান বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে আগ্রহী হয়ে উঠেছিল| কিন্তু প্রাচ্যবাদীরা এই সহজ সত্যটা বুঝতে না পেরে মাতৃভাষার মাধ্যমে শিক্ষা দানের উপর গুরুত্ব দিয়েছিলেন|

প্রাচ্যবাদীদের ধ্যান-ধারণার চূড়ান্ত পরাজয় ঘটেছিল লর্ড ম্যাকলের হাতে| ম্যাকলে তখন ভারতের গভর্নর জেনারেল কাউন্সিলের আইন বিষয়ক সদস্য হিসাবে নিযুক্ত হন| ম্যাকলে ইংরেজদের জাতিগত ধ্যান-ধারণায় বিশ্বাসী ছিলেন| তিনি পাশ্চাত্য শিক্ষার প্রতি বেশি আগ্রহী ছিলেন| কারণ তিনি নিজে মনে করতেন, ইংরেজি ছিল সাংস্কৃতিক উন্নয়নের একমাত্র দিশারী|

ম্যাকলে মনে করেন, তার প্রাথমিক উদ্দেশ্য হবে একদল ভারতীয় ইংরেজি শিক্ষায় শিক্ষিত মধ্যবিত্ত শ্রেণী তৈরি করা| অর্থাৎ তিনি বুঝাতে চেয়েছিলেন যে, ভারতীয়রা বর্ণে ও রক্তে ভারতীয় হিসাবে পরিচিত থাকবে, কিন্তু রুচিতে, মতাদর্শে ও মানবিকতায় হবে ইংরেজ প্রভাবিত| তার সঙ্গে তিনি এক কথায় জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, সমস্ত প্রতিষ্ঠানগুলি ভারতীয় ভাষায় শিক্ষাদান করতে পারে, কিন্তু তারা কোনো রকম সরকারি সাহায্য পাবে না|

ম্যাকলের এই নীতি লর্ড বেন্টিংককে খুব উৎসাহিত করেছিল| তার উদ্দেশ্যের উপর ভিত্তি করে তিনি ঘোষনা করে বলেন যে, সরকারের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হবে ভারতীয়দের ইউরোপীয় সাহিত্য ও বিজ্ঞানে শিক্ষিত করে তোলা এবং শিক্ষা খাতে বরাদ্দকৃত অর্থ কেবলমাত্র ইংরেজি শিক্ষার জন্য ব্যয় করা হবে|

পরবর্তীকালে অকল্যান্ডের সিদ্ধান্তের মাধ্যমে প্রাচ্যবাদী ও পাশ্চাত্যবাদী বিতর্কের অবসান হয়| তিনি বলেন যে, প্রাচ্য শিক্ষা বিস্তার ঘটানোর প্রয়াস অক্ষুণ্ণ রেখে প্রাচ্যবাদী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির জন্য বছরে 31 হাজার টাকার অধিক ব্যয় করা হবে এবং দেশীয় ভাষা ও ইংরেজি ভাষা দুই এর মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষা দেওয়া হবে|


সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
              ......................................................

নবীনতর পূর্বতন
👉 Join Our Whatsapp Group- Click here 🙋‍♂️

    
  
  
    👉 Join our Facebook Group- Click here 🙋‍♂️
  


  

   
  
  
    👉 Like our Facebook Page- Click here 🙋‍♂️

    👉 অনলাইনে মক টেস্ট দিন- Click here 📝📖 

👉 আজকের দিনের ইতিহাস - Click here 🌐 🙋‍♂️

    
  
           

 Join Telegram... Family Members
  
     
                
                






টেলিগ্রামে যোগ দিন ... পরিবারের সদস্য









নীচের ভিডিওটি ক্লিক করে জেনে নিন আমাদের ওয়েবসাইটটির ইতিহাস সম্পর্কিত পরিসেবাগুলি


পরিক্ষা দেন

ভিজিট করুন আমাদের মক টেস্ট গুলিতে এবং নিজেকে সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুত করুন- Click Here

আমাদের প্রয়োজনীয় পরিসেবা ?

Click Here