সমাজ সংস্কারক হিসেবে রাজা রামমোহন রায়

স্বাধীন ভারতের নির্মাতা হিসাবে রাজা রামমোহনের ভূমিকা ও অবদান নিয়ে পন্ডিত ও ঐতিহাসিকদের মধ্যে বিতর্কের অন্ত নেই| কিশোরী চাঁদ মিত্র, ব্রজেন্দ্রনাথ শীল, অমল ঘোষ- এরা প্রত্যেকেই রামমোহনের প্রশংসা করেছেন| কিন্তু অধ্যাপক রমেশচন্দ্র মজুমদার রামমোহনকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন| 

অধ্যাপক ডেভিড কফের মতে রামমোহনের অবদান নিয়ে বাড়াবাড়ি করা হয়েছে| তিনি পরিষ্কার বলেছেন, উনবিংশ শতকের নবজাগরণ কোন ব্যক্তির অবদান নয়|

মার্কসবাদী পন্ডিত সুমিত সরকার, রবীন্দ্র গুপ্ত, সুশোভন সরকার থেকে শুরু করে সাম্প্রতিক কালের মার্কসবাদী লেখকরাও রামমোহনের অবদান নিয়ে তাদের বক্তব্য উত্থাপন করেছেন| এরা রামমোহনের কিছু ধারার প্রশংসা করলেও তাদের মধ্যে স্ববিরোধিতা ও ব্রিটিশ শাসনের প্রতি এক মহা দৃষ্টিভঙ্গি লক্ষ্য করেছেন|

সমাজ-সংস্কারক-হিসেবে-রাজা-রামমোহন-রায়
রামমোহন রায়
Source- wikipedia (check here)
Year of publication- 1907
Author- Sastri, Sibnath
Modified- colour and background

সমাজ-সংস্কারক-হিসেবে-রাজা-রামমোহন-রায়
ব্রিটিশ পতাকা


রামমোহন রায় নিঃসন্দেহে একজন মহান সমাজ সংস্কারক ছিলেন, তথাপি তাঁর সংস্কার বিরোধী চিত্র বিদ্যমান ছিল বলে ঐতিহাসিকগণ একমত হয়েছেন| তবে তাঁর আধুনিক সংস্কারের কিছু সীমাবদ্ধতা ও মৌলিকতার অভাব ছিল|

আচার্য ব্রজেন্দ্রনাথ শীল রাজা রামমোহনকে বিশ্ব মানব(Universal Man) বলে অভিহিত করলেও অধ্যাপক রমেশ চন্দ্র মজুমদার ধর্ম, সমাজ সংস্কারক, শিক্ষা ও আধুনিকতার অগ্রদূত হিসেবে রামমোহনের সকল কৃতিত্ব মেনে নিতে রাজি নন, তাঁর জীবন ও কর্মের বহু ক্ষেত্রে তিনি স্ববিরোধিতা উল্লেখ করেছেন, যেমন-
  1. হিন্দু ধর্মের কুসংস্কার, পৌত্তলিকতা, সতীদাহ(আরো পড়ুন) প্রভৃতি বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করলেও তিনি জাতিভেদ প্রথা, বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে সেভাবে রুখে দাঁড়াননি| অন্যদিকে দেখলে দেখা যাবে যে, তিনি বিলেত যাত্রা ক্ষেত্রে সঙ্গে ব্রাহ্মণ পাচক নিতে ভুলেননি এবং ব্রাহ্মণ সমাজে ব্রাহ্মণ ছাড়া অপর কেউ আচার্য হতে পারতেন না|
  2. হিন্দু ধর্মের সংস্কার করতে গিয়ে তিনি যুক্তিবাদের উপর নির্ভরশীল না হয়ে ধর্মশাস্ত্রগুলির উপর বেশি নির্ভরশীল হয়ে পড়েছিলেন| তিনি বেদাঙ্গের উপর ভিত্তি করে সংস্কারের ব্রতী হয়েছিলেন, কিন্তু বেদাঙ্গতে ত্যাগবাদকে অনুসরণ করেননি|
  3. চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের কারণে কৃষকদের দুরবস্থার প্রতি সহানুভূতিশীল হলেও জমিদারদের অত্যাচারের বিরুদ্ধে কিংবা নীলকর সাহেবদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নেননি| 
  4. তিনি অবাধ বাণিজ্যের সমর্থক ছিলেন, কিন্তু কুটির শিল্পগুলিকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করার কোন পরিকল্পনা নিতে পারেননি| 
  5. তাঁর অতিরিক্ত ইংরেজ ও ইংরেজি শিক্ষার প্রতি সহানুভূতির ফলে অনেক ঐতিহাসিকই রামমোহনকে জাতীয়তাবাদের বিরোধী বলে মনে করেন|
এইভাবে বিরুদ্ধে সমালোচনা সত্ত্বেও নিঃসন্দেহে রামমোহন ছিলেন ভারতের নবজাগরণের অগ্রদূত|

পরিশেষে অধ্যাপক ম্যাক্স মুলার এর মতে, রামমোহনই প্রথম প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের জীবন তরঙ্গের মধ্যে সমন্বয় সাধন করেছিলেন|


তথ্যসূত্র

  1. সুমিত সরকার, "আধুনিক ভারতের ইতিহাস"
  2. Harihara Dasa, "The Indian renaissance and Raja Rammohan Roy".
  3. Sonali Bansal, "Modern Indian History".

সম্পর্কিত বিষয়

সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
              ......................................................

Previous Post Next Post

মক টেস্ট

ভিজিট করুন আমাদের মক টেস্ট গুলিতে- Click Here

সাহায্যের প্রয়োজন ?

প্রশ্ন করুন- Click Here

ফেসবুকের মাধ্যমে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

our Facebook page- Click Here

Our Facebook Group- Click Here

ইমেইলের মাধ্যমে ইতিহাস সম্পর্কিত নতুন আপডেটগুলি পান(please check your Gmail box after subscribe)

নতুন আপডেট গুলির জন্য নিজের ইমেইলের ঠিকানা লিখুন:

Delivered by FeedBurner