1815 খ্রিস্টাব্দের পরে ইউরোপের ইতিহাস

1815 খ্রিষ্টাব্দে ইউরোপ ছিল এক অস্থিরতা ও অনিশ্চয়তার মুহূর্ত প্রতীক| ইউরোপের মানুষ যেন তখন দিশেহারা ও দোলাচল চিত্র| ফরাসি বিপ্লব এবং নেপোলিয়ানের শাসন পুরাতন তন্ত্রের উপর আঘাত হানলেও তাকে সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস বা নিশ্চিহ্ন করতে পারেনি| 

আসলে 1815 খ্রিষ্টাব্দের পর ইউরোপের ইতিহাসে দুই পরস্পর বিরোধী ভাবধারাকে সক্রিয় দেখা যায়| একদিকে বিপ্লব পূর্ববর্তী ভাবধারাগুলিকে রক্ষা করার চেষ্টা চলে, অপরদিকে সমাজ যে সকল পরিবর্তন ঘটে, তার ফলে পুরাতন তন্ত্রের রক্ষণশীলতার বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়|

এই প্রতিক্রিয়াগুলি পুরাতন তন্ত্রকে ধসিয়ে পরিবর্তনের পথ রচনা করেন|

1815-খ্রিস্টাব্দের-পরে-ইউরোপের-ইতিহাস



নতুন ও পুরাতনের এই দ্বন্দ্বে অবশ্য শেষ পর্যন্ত নতুনই জয় হয়েছিল| পুরাতন নতুনকে তার সঠিক পথ ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছিল| একটু একটু করে পিছনে যেতে যেতে পুরাতন তন্ত্র শেষ পর্যন্ত বাতিল হয়ে যায়| অষ্টাদশ শতকের রাষ্ট্র, সমাজ ও অর্থনীতিকে "পুরাতনতন্ত্র" বলা হয়|

পুরাতন তন্ত্রের প্রধান স্তম্ভগুলি ছিল স্বৈরাচারী রাজতন্ত্র, চার্চ ও সামন্ততন্ত্র| রাজা ঈশ্বরের নির্দেশে বংশানুক্রমিকভাবে শাসন করবেন- এই তথ্যকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছিল| রাজার এই অধিকারকে ন্যায্য অধিকার বলে অভিহিত করা হয়| নেপোলিয়নের পতনের পর 1815 খ্রিষ্টাব্দে রাষ্ট্রকে নতুন জীবন দান করা হয়েছিল|

ব্রিটেন ও প্রাশিয়ার মতো প্রোটেস্ট্যান্ট রাষ্ট্রগুলিও ইউরোপে গির্জার ক্ষমতা পুনরুদ্ধারের সমর্থ জানিয়ে ছিল| ফ্রান্স, স্পেন ও ইতালিতে জেসুইটরা শক্তি সঞ্চয় করতে থাকে এবং রাজনীতি, প্রশাসন ও শিক্ষা ক্ষেত্রে তাদের প্রভাব অনুভূত হয়| ফ্রান্স পরবর্তীতে বাধ্য হয়ে গির্জার অত্যাচারকে আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করে|

1815-খ্রিস্টাব্দের-পরে-ইউরোপের-ইতিহাস
চার্চ


সর্বোপরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি গির্জা কবলিত হওয়ায় স্বাধীন চিন্তা অংকুর পরিস্ফুট হতে বাধা দেয়| পুরাতন তন্ত্রের আরেকটি ভিত্তি ছিল সামন্ততন্ত্র| 1815 খ্রিষ্টাব্দের পর সামন্ততন্ত্র তার হারিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা ফিরে পাবার চেষ্টা চালায়| যদিও ফরাসি বিপ্লব এবং নেপোলিয়ানের ঝড় ফ্রান্সে ও ইউরোপের সামন্ত শ্রেণীর অধিকারকে চূর্ণ-বিচূর্ণ করেছিল| কিন্তু আবার নেপোলিয়নের পতনের পর এরা আবার বিভিন্ন স্বপ্ন দেখতে শুরু করে|

এই পরিবর্তনশীলতা সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ সুদূর প্রসারী উপাদান ছিল ইউরোপের লোকসংখ্যার বিস্ফোরণ| ডেবিট টমসনের বর্ণনা অনুযায়ী জনসংখ্যার বিস্ফোরণ ইউরোপের সমাজ ও রাষ্ট্রে প্রচন্ড অস্থিরতা সৃষ্টি করে| পুরাতন বটল যেমন মদ ধরে রাখতে পারে না, সেইরূপ ইউরোপে পুরাতন সমাজ ব্যবস্থার সামন্ততান্ত্রিক অর্থনীতি এই জনসংখ্যার চাপ ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়| কাজেই 1815 খ্রিস্টাব্দে ইউরোপের পুরাতন ব্যবস্থাকে ফিরিয়ে আনার জন্য যতই চেষ্টা করা হোক না কেন, তা প্রজন্মের কাছে কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য ছিল না|

1815 খ্রিষ্টাব্দের পর ইউরোপে বিরাট বিপ্লব ঘটে| শিল্পশিল্প বিপ্লবের ফলে ইউরোপে জীবনধারা, রাষ্ট্রব্যবস্থা ও সমাজকে আমুলভাবে বদলে দিয়েছিল| ইউরোপে পরিবর্তনের অগ্রদূত হিসেবে 1815 খ্রিষ্টাব্দের পর আদর্শের দিক থেকে জাতীয়তাবাদ, প্রজাতন্ত্র, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের প্রসার হয়|

যাইহোক একদিকে কেন্দ্রীভূত শাসন এবং অন্যদিকে উদারনীতিবাদ ও গণতন্ত্রের প্রসার এবং উভয়ের মধ্যে সংঘাত, এই দুই মিলে উনবিংশ শতাব্দীর ইউরোপ উত্তাল হয়ে উঠে| শিল্প বিপ্লবের ফলে শ্রমিক শ্রেণীর শশান ঘটে, এই জন্য সমাজতন্ত্রবাদের প্রসার হয়|

1815-খ্রিস্টাব্দের-পরে-ইউরোপের-ইতিহাস
কাল মার্কস

বস্তুত কাল মার্কসের আবির্ভাবের আগে পর্যন্ত সমাজতন্ত্র ছিল অপরিণত| তাই সমাজতন্ত্রবাদের দুটি পর্যায় ছিল, যথা- ইউরোপীয় বা বাস্তববিহীন সমাজতন্ত্র ও মার্কসবাদ|


তথ্যসূত্র

  1. অধ্যাপক গোপালকৃষ্ণ পাহাড়ি, "ইউরোপের ইতিবৃত্ত"
  2. Adam Zamoyski, "Rites of Peace: The Fall of Napoleon and the Congress of Vienna".
  3. George Holmes, "The Oxford History of Medieval Europe".

সম্পর্কিত বিষয়

সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                     .......................................

    নবীনতর পূর্বতন
    👉 Join Our Whatsapp Group- Click here 🙋‍♂️
    
        
      
      
        👉 Join our Facebook Group- Click here 🙋‍♂️
      
    
    
      
    
       
      
      
        👉 Like our Facebook Page- Click here 🙋‍♂️
    
    
        👉 অনলাইনে মক টেস্ট দিন- Click here 📝📖 
    
    
    👉 আজকের দিনের ইতিহাস - Click here 🌐 🙋‍♂️
    
    
        
      
               
    
     Join Telegram... Family Members
      
         
                    
                    
    
    
    
    
    
    
    

    টেলিগ্রামে যোগ দিন ... পরিবারের সদস্য

    
    
    
    
    
    
    
    
    
    

    নীচের ভিডিওটি ক্লিক করে জেনে নিন আমাদের ওয়েবসাইটটির ইতিহাস সম্পর্কিত পরিসেবাগুলি

    
    

    পরিক্ষা দেন

    ভিজিট করুন আমাদের মক টেস্ট গুলিতে এবং নিজেকে সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুত করুন- Click Here

    আমাদের প্রয়োজনীয় পরিসেবা ?

    Click Here