নব্য উপনিবেশবাদ কাকে বলে

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়ার পরেই এশিয়া ও আফ্রিকার অঞ্চলে উপনিবেশগুলি একে একে স্বাধীনতা অর্জন করতে থাকে| কিন্তু এর ফলস্বরূপ উপনিবেশবাদ যে সম্পূর্ণভাবে অবলুপ্ত হয়, তা নয়| 

সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলি বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে তাদের ঔপনিবেশিক শাসনের জাল গুটিয়ে আনতে বাধ্য হওয়ায় নতুন উপায় অনুসন্ধান করতে শুরু করে, যার মাধ্যমে তারা প্রত্যক্ষভাবে না হলেও পরোক্ষভাবে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অনুশাসন চালিয়ে যেতে থাকে|

এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে নয়া বা নব্য উপনিবেশবাদের আবির্ভাব ঘটে| ব্রুটেন্টসের মতে, নয়া উপনিবেশবাদ হলো তৃতীয় বিশ্বের সফল জাতীয় মুক্তি আন্দোলনের প্রেক্ষিতে পশ্চাৎপদী সাম্রাজ্যবাদের পাল্টা জবাব|

নব্য-উপনিবেশবাদ-কাকে-বলে
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ

নব্য-উপনিবেশবাদ-কাকে-বলে
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ


রাজনৈতিক দিক থেকে স্বাধীন হলেও তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোর অর্থনৈতিক অবস্থা অনেকাংশেই বৈদেশিক সংগঠন বা বহুজাতিক সংস্থা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত, একেই Economic Dependency বা অর্থনৈতিক নির্ভরশীলতা বলা হয়| এর মূল কারণ হলো, এই দেশগুলি উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় মূলধন সংগ্রহ করতে অপারক/পারে না এবং প্রযুক্তিগত দিক থেকেও পশ্চাৎপদ|

নয়া উপনিবেশবাদের আরেকটি দিক হল বাজার অর্থনীতি| সম্প্রতি GATT চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর বা ডাঙ্কেন প্রস্তাব প্রায় সমস্ত রাষ্ট্র মেনে নেওয়ায় তৃতীয় বিশ্বের লগ্নির পরিমাণ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে| তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলো কৃষি ও শিল্পের স্বয়ম্ভর হয়ে উঠলে পুঁজিবাদী রাষ্ট্রগুলির রপ্তানি বাণিজ্যে হার আরও সংকুচিত হবে| তাই এই পরিস্থিতি প্রতিরোধ করতেই শিল্পোন্নত রাষ্ট্রগুলির মস্তিষ্ক প্রসূত নীতি হলো - GATT, WTO, বিশ্বায়ন ইত্যাদি| তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলো এই সকল ফাঁদে পা দেওয়া ছাড়া উপায় নেই|

দ্রুত বিকাশের জন্য প্রয়োজন শিল্পোন্নত দেশগুলোর কাছ থেকে অর্থনৈতিক প্রযুক্তি ও অন্যান্য সাহায্য| এই সাহায্যের বিনিময়ে তারা অনুন্নত দেশগুলোকে আপত্তিজনক শর্তাবলী মেনে নিতে বাধ্য করেছে| তবে বিদেশি পুঁজি ও প্রযুক্তি বিদ্যা প্রয়োগ করে অনুন্নত দেশগুলো তাদের উন্নয়নের লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হচ্ছে, তা কিন্তু নয়|

উপরিউক্ত আলোচনা থেকে একথা সুস্পষ্টভাবে বলা যায় যে, নয়া উপনিবেশবাদ আর কিছুই নয়, রাজনৈতিক ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর সাম্রাজ্যবাদী শক্তির অর্থনৈতিক নিয়ন্ত্রণ সুসংহত ও প্রসার করার প্রয়াস মাত্র|

তবে এধারণাও ঠিক নয় যে, নব্য উপনিবেশবাদ বহু চরিত্র সমন্বিত| নক্রুমাহ ব্যাখ্যা করেছেন যে, নব্য উপনিবেশবাদের কৌশলগুলি অতি সূক্ষ্ম ও বিচিত্র এবং এগুলো শুধুমাত্র অর্থনীতির ক্ষেত্রে কার্যকর তা নয়, রাজনৈতিক মতাদর্শগত ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রেই এগুলি সমানভাবে প্রযোজ্য| কোন কোন ক্ষেত্রে রাজনীতিতে সরাসরি না হলেও পরোক্ষ হস্তক্ষেপ লক্ষ্য করা যায়| বহুজাতিক সংস্থাগুলো নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য বিরোধী গোষ্ঠীকে মদত দিয়ে শাসক দলকে ক্ষমতাচ্যুত করার ঘটনাও বিরল নয়|

নব্য উপনিবেশবাদ মতাদর্শগত ক্ষেত্রেও যথেষ্ট সক্রিয়| প্রপোগান্ডা ও অপপ্রচারের মাধ্যমগুলির সাহায্যে পাশ্চাত্য চিন্তাধারা ও আদর্শ গুলি তৃতীয় বিশ্বের জনগণের সাথে অতি সহজেই পৌঁছে যাচ্ছে এবং তাদের নিজস্ব ভাবধারাকে প্রভাবিত করতে সক্ষম হচ্ছে| এই প্রচার মূলত সাম্যবাদী আন্দোলনের বিরুদ্ধে মনোভাব সৃষ্টির উদ্দেশ্য| এর লক্ষ্য হলো, পশ্চিমী উদারনৈতিক ও গণতান্ত্রিক মতাদর্শে সুদুর প্রসারী প্রচার, যাতে করে তৃতীয় বিশ্বের সদ্য স্বাধীন রাষ্ট্রের দেশগুলি রাষ্ট্রের পরিকাঠামো সৃষ্টির সময় সমাজতান্ত্রিক আদর্শের পরিচালিত না হয়|

এছাড়া সামরিক চুক্তি সম্পাদন ও জোট প্রস্তুতিকরণ ও নয়া উপনিবেশবাদের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করে| সামরিক ঘাঁটিগুলিও অনেক সময় অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে হস্তক্ষেপের ভিত্তি হিসেবে ব্যবহৃত হয়| SEATO প্রভৃতি সংগঠনগুলিকে সদ্য স্বাধীন দেশগুলির সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলোর সাথে সহাবস্থান নয়া উপনিবেশবাদের অপর এক ধৃত প্রকাশ|


তথ্যসূত্র

  1. Pavneet Singh, "International Relations".
  2. P. M. H. Bell, "The World Since 1945: An International History".

সম্পর্কিত বিষয়

  1. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরবর্তী সময় উপনিবেশবাদের পতন তথা এর গুরুত্ব (আরো পড়ুন)
  2. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে জার্মানির বিভাজন তথা বিশ্ব রাজনীতিতে তার প্রভাব  (আরো পড়ুন)
  3. ইতালিতে ফ্যাসিবাদের উত্থানের কারণ  (আরো পড়ুন)
  4. GATT কি (আরো পড়ুন
সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                     .......................................

    নবীনতর পূর্বতন
    👉 Join Our Whatsapp Group- Click here 🙋‍♂️
    
        
      
      
        👉 Join our Facebook Group- Click here 🙋‍♂️
      
    
    
      
    
       
      
      
        👉 Like our Facebook Page- Click here 🙋‍♂️
    
    
        👉 অনলাইনে মক টেস্ট দিন- Click here 📝📖 
    
    
    👉 আজকের দিনের ইতিহাস - Click here 🌐 🙋‍♂️
    
    
        
      
               
    
     Join Telegram... Family Members
      
         
                    
                    
    
    
    
    
    
    
    

    টেলিগ্রামে যোগ দিন ... পরিবারের সদস্য

    
    
    
    
    
    
    
    
    
    

    নীচের ভিডিওটি ক্লিক করে জেনে নিন আমাদের ওয়েবসাইটটির ইতিহাস সম্পর্কিত পরিসেবাগুলি

    
    

    পরিক্ষা দেন

    ভিজিট করুন আমাদের মক টেস্ট গুলিতে এবং নিজেকে সরকারি চাকরির জন্য প্রস্তুত করুন- Click Here

    আমাদের প্রয়োজনীয় পরিসেবা ?

    Click Here