অবশিল্পায়ন কাকে বলে

ভারতের ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদ প্রসারের সবচেয়ে বিস্ময়কর ঘটনা হলো ভারতের চিরাচরিত ঐতিহ্যগত কুটির শিল্প ও হস্তশিল্পের ধ্বংস সাধন| 

বিশ্বের সভ্য সমাজে শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে শিল্পীদের দ্বারা নির্মিত উপভোগ্য শিল্পবস্তুর প্রকৃত সমাদর ছিল ভারতের কারু শিল্পের উৎকর্ষতা কথা এবং এই কথা বিশ্ববাসী এক কথায় স্বীকার করেন, কিন্তু ইংরেজদের ভারত জয়ের পর যন্ত্র নির্মিত দ্রব্য ভারতের বাজারে প্রবেশ করেছিল|

অবশিল্পায়ন-কাকে-বলে
ব্রিটিশ পতাকা


অসম প্রতিযোগিতায় সস্তার ব্রিটিশ পণ্যের কাছে ভারতীয় শিল্প পণ্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল| এরফলে ঊনবিংশ শতাব্দীতে ভারতীয় বস্ত্র শিল্পের ধ্বংস সাধনের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়| ঐতিহাসিকরা ব্রিটিশ উপনিবেশিক শাসনের প্রক্রিয়া হিসাবে ভারতীয় শিল্পের এই ধ্বংস সাধনকে "অবশিল্পায়ন" বা "Deindustrialization" বলে অভিহিত করেছেন|

কিন্তু আমেরিকার গবেষক মরিস-ডি-মরিস তার "Indian economic and social history reviled" গ্রন্থে বলেছেন, উপনিবেশিক ভারতে অবশিল্পায়ন ঘটেনি, অন্যদিকে অধ্যাপক ড্যানিয়েল থর্নার "Land and Labour in India" গ্রন্থে প্রায় একই বক্তব্য বলেছেন|

কিন্তু জাপানি ঐতিহাসিক তরুমাৎসুই থর্নারের যুক্তিকে অগ্রাহ্য করে বলেছেন, উপনিবেশিক ভারতে যে অবশিল্পায়ন প্রক্রিয়া ঘটেছিল সেটা বাস্তব ও ঐতিহাসিক ঘটনা|


তথ্যসূত্র

  1. সুমিত সরকার, "আধুনিক ভারত"
  2. শেখর বন্দ্যোপাধ্যায়, "পলাশি থেকে পার্টিশন"
  3. Ishita Banerjee-Dube, "A History of Modern India".

সম্পর্কিত বিষয়

  1. ভারতের অবশিল্পায়ন এবং এর পদ্ধতি, কারণ এবং ফলাফল (আরো পড়ুন)
  2. অবশিল্পায়ন বিতর্ক (আরো পড়ুন)
  3. সম্পদের বহির্গমন তত্ত্ব এবং এটি কিভাবে বাংলার অর্থনীতিকে প্রভাবিত করেছিল  (আরো পড়ুন)
  4. ১৮৫৮ সালের ভারত শাসন আইন  (আরো পড়ুন)
সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                     .......................................

    Previous Post Next Post

    মক টেস্ট

    ভিজিট করুন আমাদের মক টেস্ট গুলিতে- Click Here

    সাহায্যের প্রয়োজন ?

    প্রশ্ন করুন- Click Here

    ফেসবুকের মাধ্যমে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

    our Facebook page- Click Here

    Our Facebook Group- Click Here

    ইমেইলের মাধ্যমে ইতিহাস সম্পর্কিত নতুন আপডেটগুলি পান(please check your Gmail box after subscribe)

    নতুন আপডেট গুলির জন্য নিজের ইমেইলের ঠিকানা লিখুন:

    Delivered by FeedBurner