সংস্কৃতির গুরুত্ব , বৈশিষ্ট্য ও ধারণা সমূহ

সংস্কৃতি বলতে আমরা সাধারণত সমাজে জনগোষ্ঠীর একগুচ্ছ রীতি-নীতি, ধ্যান-ধারণা ও সামাজিক আচরণকে বুঝে থাকি| ভৌগলিক সীমান্তের দরুন সাংস্কৃতিক পার্থক্য ঘটে থাকে| কোন একটি বিশেষ সংস্কৃতির ক্ষেত্রে ভাষা, বর্ণ, খাদ্যাভাস, সামাজিক আইন-কানুন, সঙ্গীত এবং শিল্পকলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে|

সংস্কৃতির-গুরুত্ব-বৈশিষ্ট্য-ও-ধারণা-সমূহ


স্মরণাতীত কাল থেকে বিভিন্ন জনগোষ্ঠী তাদের নিজস্ব সংস্কৃতি বহন করে নিয়ে আসে এবং সময়ের সাথে সাথে বিভিন্ন প্রজন্মের হাতে তা হস্তান্তরিত হয়েছে| সংস্কৃতির মাধ্যমে মানুষ একে অপরের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে থাকে এবং একই সাংস্কৃতিক পটভূমিতে একটি জনগোষ্ঠী গড়ে তোলে| 

বিবর্তনের সাথে অভ্যস্ত হয়ে যাওয়া জনগোষ্ঠীর পরিচায়ক রূপে সেই জনগোষ্ঠীর সংস্কৃতিকে চিহ্নিত করা হয়| সাংস্কৃতিক পরিণয় মাধ্যমেই আমরা পূর্বপুরুষদের কাছ থেকে প্রাপ্ত বিভিন্ন গুণাবলী অর্জন ও ধারণ করে থাকি, যা জীবনের অর্থ চিহ্নিত করে| সাংস্কৃতিক বহনের মাধ্যমেই কোন নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য সমূহ ফুটে উঠে|

বর্তমান সময়ে সংস্কৃতির ধারণা

সংস্কৃতির ধারণাটি বর্তমান সময়ে পরিপ্রেক্ষিতে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক ও গুরুত্বপূর্ণ রূপে প্রতিভাত হয়েছে| আমাদের সংস্কৃতির মাধ্যমেই আমরা পূর্ব-পুরুষদের সম্পর্কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আহরণ করে থাকি| সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হল কোন ইতিহাস বইয়ের মতো, যা সকলের গুরুত্ব সহকারে পাঠ করা উচিত|


মানব জীবন নশ্বর হলো এর সাংস্কৃতিক দিকগুলি অমর| পূর্ব পুরুষদের মধ্যে প্রচলিত বিভিন্ন সাংস্কৃতিক গুণাবলী পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যেও আপন নিয়মে পরিবাহিত হয়| যখন আমরা আমাদের সাংস্কৃতিক উৎস সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করি এবং যেগুলিকে অনুসরণ করি, তা আমাদের নিজেদের জানতে অনেক বেশি সাহায্য করে|

আত্মউপলব্ধির মাধ্যমে আমরা জনগোষ্ঠী হিসেবে নিজেদের উৎস ও গুণাবলী গুলির মধ্যে আরও বেশি মাত্রায় সংযোগ স্থাপন করতে পারি| এইভাবে সাংস্কৃতিক অভ্যাস সমূহের মধ্য দিয়ে আমাদের আত্ম সম্মান ও মর্যাদা বৃদ্ধি পায়, পাশাপাশি নিজস্ব সংস্কৃতির ধারক ও বাহক রূপে আমাদের মধ্যে গর্ব অনুভূত হয়|

সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্য সমূহ

কোন জনগোষ্ঠী যখন তাদের সংস্কৃতি সম্পর্কে অত্যন্ত সচেতন থাকে ও সেই বিষয়ে এক গভীরতা অর্জন করে, তখন সেই জনগোষ্ঠীর মধ্যেই তাদের বিবর্তনের সম্পর্কে এক জ্ঞানদীপ্তির সঞ্চার হয়|

এইভাবে দেখা যায় যে, বিভিন্ন সংস্কৃতি সম্পর্কে অধ্যায়ন করলে তা বিশেষ আগ্রহ সঞ্চয় করে এবং আমাদের অতীত সম্পর্কে জ্ঞানের সঞ্চার করে| পাশাপাশি বিভিন্ন সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে যে সন্দেহগুলি আমাদের ভিতরে রয়েছে তা নিরসনেও সাহায্য করে|

একটি সংস্কৃতিকে অনুসরণ করলে সেই সংস্কৃতির অভ্যন্তরে থাকা নৈতিক মূল্যবোধ সমূহ আমাদের মধ্য সঞ্চালিত হয়| প্রত্যেক সংস্কৃতিরই নিজস্ব কিছু ধ্যান-ধারণা ও বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা মানব জীবনকে আরও সমৃদ্ধ করে তুলে| এর ফলে বহুমুখী সমাজের মানুষ একে অপরের সাথে দায়িত্বশীল হয়ে সহাবস্থানের সক্ষম হয়|



সাংস্কৃতিক ধারণা সমূহ

সাংস্কৃতিক ধারণা সমূহ মানব জীবনকে শৃঙ্খলা পলায়ন করে তুলে| প্রতিটি সংস্কৃতির নিজস্ব নিয়ম-কানুন রয়েছে, যা অনুশীলনের মাধ্যমে এক শান্তিপূর্ণ জীবন ধারণ সম্ভব| এই সকল নিয়ম কানুনগুলি নির্দিষ্ট কারণের পরিপ্রেক্ষিতে তৈরি করা হয়েছিল এবং তা যথাযথভাবে মেনে চলা প্রতিটি মানুষেরই কর্তব্য|

সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সমূহকে অবহেলা করা অবিবেচকরূপে পরিগণিত হয়| সংস্কৃতির বিভিন্ন দিকগুলিকে বিছদে পর্যালোচনা করলে আমাদের মধ্যে জ্ঞানের বৃদ্ধি ঘটে| পাশাপাশি সংস্কৃতি থেকে আমরা এই শিক্ষা পাই যে, বিশ্বের অন্যান্য সংস্কৃতির সঙ্গে কিভাবে সহাবস্থান করতে হয়|

আর অন্যভাবে বলা হয় যে, সাংস্কৃতিক শিক্ষার অন্যতম লক্ষ্য হলো জীবনের শান্তির প্রচেষ্টা| প্রত্যেকের প্রতি সম্মান প্রদর্শনও সাংস্কৃতিক শিক্ষার একটি অঙ্গ|

সাংস্কৃতিক অনুশীলনের মাধ্যমেই মানুষ জীবনের মূল অনুধাবন করতে পারে| সাংস্কৃতিক ধারণাগুলি পূর্ব-পুরুষদের দ্বারা রচিত হলেও তা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে জীবনে সহজভাবে বাঁচার এক সুরক্ষা কবচ হিসেবে পরিগণিত হয়েছে| পাশাপাশি সাংস্কৃতিক ধারণাগুলির মধ্য দিয়েই মানুষ নিজেকে আরও দায়িত্বশীল করে তুলেছে|

উপসংহার

উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমরা পরিশেষে বলতে পারি যে, সংস্কৃতিহীন মানবজীবন পশুর জীবনের সঙ্গে তুলনীয়| আমাদের সংস্কৃতি ও সমাজ দায়িত্বশীল মানুষ হিসেবে আমাদের তুলতে সাহায্য করে| কোন জাতি গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য তার সাংস্কৃতিক কার্যাবলীর মধ্য দিয়ে ফুটে ওঠে| সাংস্কৃতিক গুণাবলীকে ধ্বংস করা কখনোই কাম্য নয়|

তথ্যসূত্র

  1. Daniel Coyle, "The Culture Code"
  2. Devdutt Pattanaik, "Culture: 50 Insights from Mythology"
  3. Edward W Said, "Culture And Imperialism"
সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|
                 ...................................


Your Reaction ?

Previous
Next Post »