লর্ড উইলিয়াম বেন্টিংক এর সংস্কার

ব্রিটিশ ভারতের যে কয়েকজন মুষ্টিমেয় গভর্নর জেনারেল বহুবিধ উদার ও প্রগতিশীল সংস্কারের মাধ্যমে ভারতীয়দের মনে আধুনিক চিন্তার বিকাশ ঘটিয়েছিলেন, তাদের মধ্যে লর্ড উইলিয়াম বেন্টিংক ছিলেন অন্যতম|

গভর্নর জেনারেল হিসাবে 1828  খ্রিস্টাব্দ থেকে 1835 খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত তার শাসন কাল যুদ্ধ বিগ্রহ বা কূটকৌশলের দ্বারা পরিচালিত আগ্রাসী নীতির জন্য ভারতের ইতিহাসে কুখ্যাত বা কলঙ্কিত নয়, বরং শান্তি ও আধুনিক সংস্কারের জন্য তার শাসনকাল ভারতের ইতিহাসে এক গৌরবজনক অধ্যায় হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে|

দার্শনিক বেন্থামের হিতবাদী দর্শনের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে লর্ড বেন্টিংক উপলব্ধি করেন যে, সংখ্যাগরিষ্ঠ ভারতবাসীর সর্বোৎকৃষ্ট উন্নতির জন্য কোম্পানির প্রশাসনকে কাজে লাগাতে না পারলে ভারতে ইংরেজ শাসনের রাজনৈতিক অধিকার থাকবে না| তাই তিনি বহুবিধ আধুনিক সংস্কারের ব্রতী হন|


লর্ড-উইলিয়াম-বেন্টিংক-এর-সংস্কার
লর্ড উইলিয়াম বেন্টিংক
Modified- color and background
License- creative commons
Date- 1860
Source- (check here)





শাসনতান্ত্রিক সংস্কারক 

শাসন ব্যবস্থার সুবিধার্থে বেন্টিংক বিচার বিভাগের উন্নতি সাধন করেন| তিনি কয়েকটি জেলা নিয়ে একটি ডিভিশন গঠন করেন| লর্ড কর্নওয়ালিস প্রস্তাবিত ভ্রাম্যমান বিচারালয় বা অফিস-আদালত গড়ে তুলে প্রতিটি ডিভিশনের শাসনভার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, জর্জ, কালেক্টর ও পুলিশের কাজ তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব কমিশনের উপর অর্পণ করেন| একজন কমিশনের পক্ষে এই বিশাল দায়িত্ব পালন করা কঠিন বিবেচনা করে বেন্টিংক প্রশাসনিক ক্ষেত্রে পুনরায় কিছু কিছু রদবদল করেন|

লর্ড-উইলিয়াম-বেন্টিংক-এর-সংস্কার
বর্তমানে ভারতের মানচিত্র




কর্নওয়ালিসের আমলে কোন দায়িত্ব মূলক সরকারি কর্মচারী পদের ভারতীয়দের নিযুক্ত করা হতো না, এই নিয়মের অবসান ঘটিয়ে তিনি সর্বপ্রথম যোগ্য ভারতীয়দের সরকারি পদে বহাল করেন| তিনি ভারতীয়দের মধ্য থেকে ডেপুটি, ম্যাজিস্ট্রেট, ডেপুটি কালেক্টর নিয়োগের ব্যবস্থা করেন|

আদালতে ফরাসি ভাষার পরিবর্তে আঞ্চলিক ভাষার ব্যবহার করা হয়| বেন্টিংক তার কাউন্সিলের আইন সদস্য মেকলের সভাপতিত্বে একটি কমিশন গঠন করেন| মেকলের প্রচেষ্টায় ভারতীয় শাসন সংস্কারের ব্যাপারে প্রচলিত বিডি গুলিকে সংকলিত করে বিখ্যাত "Indian penal Code" বা "ভারতীয় দণ্ডবিধি" আইন রচনা করেন|

ভারতীয়দের শাসন সংক্রান্ত ব্যাপারে নিয়োগের ক্ষেত্রে কেবলমাত্র উদার মতবাদে দ্বারা পরিচালিত হয়েছিলেন এমন নয়, শ্বেতাঙ্গ কর্মচারী নিয়োগ করা ছিল অত্যন্ত ব্যয়বহুল| তাই কোম্পানির আর্থিক স্বার্থের প্রতি লক্ষ্য রেখে ভারতীয়দের সরকারি কাজে নিয়োগ করেছিলেন| বেন্টিংক প্রশাসনে ভারতীয়দের নিয়োগের পদ্ধতির নাম দিয়েছিলেন শাসন ব্যবস্থার অংশীদার|



অর্থনৈতিক সংস্কার 

বেন্টিঙ্কের ভারত আগমনের প্রাক্কালে ইঙ্গ-বার্মা যুদ্ধে প্রচুর অর্থ ব্যয় কোম্পানির আর্থিক অবস্থা শোচনীয় করে তুলেছিল| আর্থিক দুরবস্থা মোচনের জন্য তিনি ব্যয় সংকোচন নীতি গ্রহণ করেছিলেন| যেমন, শান্তির সময় সামরিক কর্মচারীদের আর্থিক ভাতা দেওয়ার প্রচলিত নিয়ম তিনি তুলে দিয়েছিলেন| এছাড়াও কোম্পানির সেনাদলের বার্ষিক ভাতা তিনি রোধ করেন এবং কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির ব্যবস্থা রোধ করেন|

লর্ড-উইলিয়াম-বেন্টিংক-এর-সংস্কার
বারাণসী





বারাণসী ও এলাহাবাদ অঞ্চলে প্রচলিত অস্থায়ী স্বল্পমেয়াদী ভূমি বন্দোবস্তের পরিবর্তে তিনি 30 বছরের জন্য স্থায়ীভাবে ভূমি বন্দোবস্ত দেওয়ার ব্যবস্থা করেন| তারই উদ্যোগে উত্তর প্রদেশের ভূমি সচিব মার্টিন বার্ড মহলওয়ারি ব্যবস্থা চালু করেন| এরফলে একদিকে কোম্পানির যেমন রাজস্বের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়, অন্যদিকে জমিদার সহ কৃষকরাও জমির উন্নতির দিকে নজর দেয়|

অবৈধভাবে জমিগুলিকে নিষ্কর দেখানো হতো, বেন্টিংক সেগুলির উপর উপযুক্ত রাজস্ব নির্ধারণ করেন| তবে বেন্টিংক এর এই রাজস্ব নির্ধারণের ফলে কোম্পানির আয় বৃদ্ধি হলেও কৃষকদের উপর করের চাপ বৃদ্ধি পায়নি| তাই বলা যায়, কৃষক সম্প্রদায় তার এই ব্যবস্থার মাধ্যমে উপকৃত হয়েছিল|

লর্ড-উইলিয়াম-বেন্টিংক-এর-সংস্কার
কফি বীজ



কম্পানি আফিমের উপর একচেটিয়া কারবার বিস্তার করে মুনাফার পরিমাণ বৃদ্ধি করেন| চা ও কফি উৎপাদন বৃদ্ধি করে কোম্পানির আর্থিক শ্রীবৃদ্ধি ঘটায়| এছাড়াও উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশে জমির উর্বরতা শক্তি বৃদ্ধি করে নতুন রাজস্ব আদায় করেন| এইভাবে তিনি একদিকে কৃষকের উন্নতি সাধন করেন ও অন্যদিকে নতুন এলাকা চাষ, উৎপাদন বৃদ্ধি ও বাণিজ্যের প্রসার ঘটিয়ে কোম্পানির আর্থিক অবস্থা সচ্ছল করার পথ সুগম করেন|




সামাজিক সংস্কার 

বেন্টিংক তার সামাজিক ও শিক্ষা সংস্কারের জন্য ভারত ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন| এই সময় সতীদাহ প্রথা সামাজিক ব্যাধি ন্যায় সমগ্র ভারতে এক কলঙ্কময় অধ্যায়ের সৃষ্টি করেছিল| মুঘল সম্রাট আকবরের আমলে এর জন্য জনমত গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল| কিন্তু বেন্টিংক এবিষয়ে সাহসিকতাপূর্ণ সক্রিয় পদক্ষেপ নিয়েছিলেন| তিনি তার দুঃসাহস ও বিচক্ষণতার দ্বারা রাজা রামমোহন রায়, দ্বারকানাথ ঠাকুর প্রভৃতি উদারপন্থী সমাজ সংস্কারকের সহযোগিতায় 1829 খ্রিষ্টাব্দে এক আইন পাশ করে সতীদাহ প্রথা রদ করেন|




শিক্ষা সংস্কার 

1813 খ্রিস্টাব্দে চার্টার আইন অনুসারে সংস্কৃত ও ফারসি ভাষা শিক্ষার জন্য এক লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেন| কিন্তু আধুনিক শিক্ষার পৃষ্ঠপোষক বেন্টিংক 1833 খ্রিস্টাব্দে চার্টার আইনে ঘোষণা করেন যে, এই বরাদ্দকৃত এক লক্ষ টাকা ইংরেজি শিক্ষার ক্ষেত্রে খরচ করা হবে| এই নিয়ে তৎকালীন ভারতবর্ষে তুমুল মতানৈক্য সৃষ্টি হয়|

যাইহোক পরিশেষে সংস্কারপন্থী বেন্টিংক কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য লর্ড মেকলের অপূর্ব সমর্থন ও সহযোগিতা ভারতে ইংরেজি শিক্ষার জোয়ার আনেন| এই পদক্ষেপ গ্রহণে তিনি রামমোহন সহ বহু প্রগতিশীল ভারতীয়দের সমর্থন লাভ করেন এবং 1834 খ্রিস্টাব্দে কলকাতায় মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন করেন|



অন্যান্য সংস্কার 

লর্ড উইলিয়াম বেন্টিঙ্কের সাত বছরের স্বল্প শাসনকাল ছিল ঘটনা বহুল| তিনি ভারতীয়দের শাসনতান্ত্রিক কাজে অংশগ্রহণ করার বৃদ্ধি থেকে আরম্ভ করে গঙ্গা সাগরে সন্তান বিসর্জন, সতীদাহ প্রথা প্রভৃতি অমানবিক প্রথা নিষিদ্ধ করে এবং আধুনিক শিক্ষা প্রণয়ন করে ভারতে আধুনিক পাশ্চাত্য শিক্ষার জোয়ার এনে মহান শাসকের অভিধায় ভূষিত হয়েছেন|

বিভিন্ন ঐতিহাসিকদের মতে, মিল ও বেন্থামের উপযোগবাদ ও হিতবাদী দর্শনের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে তিনি সংস্কারের পথে ধাবিত হয়েছিলেন|

পরিশেষে এই কথা বলা যায় যে, বেন্টিংক এর উদারনৈতিক শাসন ভারতীয় জনগণের মনে গভীর অনুপ্রেরণা যুগিয়েছিল এবং ভারতীয় জনগণের শ্রদ্ধাবোধ তাকে ভারতীয় জনে পরিণত করেছিল|




তথ্যসূত্র

  1. সুমিত সরকার, "আধুনিক ভারতের ইতিহাস"
  2. Om Prakash, "Lord William Bentinck and Metcalfe Era of Reforms".
  3. Sonali Bansal, "Modern Indian History".

সম্পর্কিত বিষয়

সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ| আশাকরি আমাদের এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগলো| আপনার যদি এই পোস্টটি সম্বন্ধে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন এবং অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে অপরকে জানতে সাহায্য করুন|

              ......................................................

Note: Email me for any questions:

:-Click here:-.

Your Reaction ?

Previous
Next Post »

আপনার মতামত শেয়ার করুন ConversionConversion EmoticonEmoticon

Top popular posts